রবিবার, ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০১৮

কলাম
image

ভ্যালেন্টাইন-ডে নষ্টাদের বেহায়াপনা দিবস

১৪ই ফেব্রুয়ারি আসলে দেশের তরুণ-তরুণীদের মাঝে যেন উল্লাসের সীমা থাকে না। অধীর আগ্রহের সাথে প্রেমিক-প্রেমিকারা অপেক্ষায় থাকে বছরের এই বিশেষ দিনটির জন্য। অতপর এই কাঙ্খিত

"শিশু ক্যান্সারে সজাগ থাকুন"

সুনির্দিষ্ট কোনও কারণ না থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে জিনগত, ভাইরাস, খাবারে বিষ জাতীয় পদার্থের উপস্থিতি, বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ সহ পরিবেশগত সমস্যায় শিশুদের ক্যান্সার হয়। তবে প্রাথমিকভাবে

ভিআইপি লেনের দাবী কতটুকু যৌক্তিক?

ভিআইপিদের চলাচলের জন্য স্বতন্ত্র লেনের দাবী উঠেছে। যে শহরে গাড়ীর গতি কচ্ছপ গতির চেয়েও ধীর অর্থ্যাৎ ঘন্টায় মোটে ৫-৭ কিলোমিটারের বেশি নয় সে শহরে, সেই সকল গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের জন্য

কোটার কাঠামোতে সংস্কার জরুরি

সরকারি চাকুরি সন্ধানীদের নিত্যদিনের স্বপ্ন কোটার কুঠুরীতে আটকা পড়ছে। বিশ্বে বোধহয় একমাত্র দেশ বাংলাদেশ যেখানে চাকুরী সন্ধানীদের শতকরা ৫৫ ভাগ কোটা থেকে নিয়োগ প্রদান

ছাত্রলীগের সেরূপ-এরূপ!

হালের আলোচিত-সমালোচিত প্রসঙ্গ শিক্ষাঙ্গনে ছাত্রলীগের বেপারোয়া ভূমিকা । ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারিতে প্রতিষ্ঠা প্রাপ্ত এ সংগঠন, যা সময়ের দিক থেকে আওয়ামীলীগেরও অগ্রজ, বাংলাদেশের প্রত্যেকটি প্রাপ্তিতে

এক নম্বরের কারবার, ওয়ান ক্লাসের প্রশ্নফাঁস!

প্রশ্নফাঁস এ জাতীর গলারফাঁস হতে বেশি বাকি নাই বৈকি ! ‘এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য ক’রে যাব আমি-নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার ।’ কিশোর কবি সুকান্ত বেঁচে থাকলে তার ‘ছাড়পত্র’

আনিসুল হক’রা বেশি দিন বাঁচে না!

যারা এখনো মৃত আনিসুল হকের রাজনৈতিক পরিচয় খোঁজেন, সে পরিচয়ে তাকে মূল্যায়িত করতে চান কিংবা যাদের কাছে ব্যক্তির মর্যাদা নির্ধারিত হয় তার রাজনৈতিক মতাদর্শের মাপকাঠিতে-তারা

বিডিআর হত্যার রায় আন্তঃ ট্রাইব্যুনালে রায়ের ন্যায়

২৭ নভেম্বর, ২০১৭ তারিখে উচ্চ আদালতে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় মামলা পিলখানা হত্যাযজ্ঞের রায় হয়েছে। এতে ১৩৯ জনের মৃত্যুদন্ড, ১৮৫ জনের যাবজ্জীবন ও ২০০ জনের

মার্কেটিংয়ে সাফল্যের চাবিকাঠি

সারা দুনিয়াতেই মার্কেটিং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হিসেবে পড়ান হয়। একাডেমিক ডিসিপ্লিন হিসেবে আমেরিকায় বা পাশ্চাত্য দেশগুলোতে ৮০ বছর এবং বাংলাদেশে প্রায় ৪০ বছর ধরে মার্কেটিং

প্যারাডাইস পেপার্স : সারাবিশ্বে সমস্যা ও সমাধান

সারা বিশ্বে সকল অন্যায় আর অপরাধের কথা তুলে ধরে অতিতেও বিভিন্ন তথ্য ফাঁস হয়েছে কিন্তু তাতেও কিছু যায়ও নি আসেও নি আমাদের রাজনীতিকদের। এই রাজনীতিকদের জন্য নিরন্তর উদাহরণ হলো- প্যারাডাইস পেপার্স

ফেনসিডিল কাশির সিরাপ, নাকি মাদক

দেখতে অনেকটা ঔষধের শিশি/বোতল। সাধারণের বুঝার ক্ষমতা নাই যে, এটা কি আসলে জীবন রক্ষাকারী ঔষধ নাকি জীবন নাশকারী মাদক। বিক্রি করতে হয় গোপনে। ভারতে নাকি ঠান্ডাজনিত কাশির ঔষধ

সবাই করে তাই আমিও করি

রিক্সায় করে যাচ্ছি, রাস্তায় জ্যাম কিন্তু যানবাহন আস্তে আস্তে আগাচ্ছে। এক লেন পরেই একটা দামি গাড়িও এগোচ্ছে। মনে মনে চিন্তা করছি, আহা এই গাড়ি কি জীবনে কিনতে পারব! ঠিক তখনি গাড়ির সামনের বাম পাশের

বাঙালি জাতির মুখবন্ধ যে ভাষণ

আমরা সবাই মিলেমিশে একটি বহুমাত্রিক, বহুবাচনিক সমাজ বিনির্মাণ করতে পারব কিনা সেটা এখন থেকেই ভাবতে হবে। স্বাধীনতার চেয়ে অনেক তাৎপর্যপূর্ণ শব্দ মুক্তি। মুক্তি বলতে সব বঞ্চনা, বৈষম্য, শোষণ, সংকীর্ণতা,

একটা মানচিত্রের ভেতর হাজারটা মানচিত্র

দেশ যখন পরাধীন ছিল তখন সবাই নির্দিষ্ট একটা গোত্রে আবদ্ধ ছিল। সে সময় দেশের নেতা, কবি, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবি, সাধারণ জনগণ একই সূতোয় গাঁথা ছিল। তাদের স্লোগান ছিল এক, দৃষ্টি-ভঙ্গি, দাবি-দাওয়া, চিন্তা-চেতনায়