nagorikkanthanagorikkantha

ঝালকাঠি শহরের কাঠপট্টি এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে বিষপান করেছে এক দম্পতি। এতে স্ত্রী সুমাইয়া ফরাজী গর্নার (২১) মৃত্যু হয়েছে আর স্বামী মো. হিমু আকন আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজে ভর্তি রয়েছেন।

কাঠপট্টি এলাকার আসলাম ফরাজীর মেয়ে সুমাইয়া ফরাজী গর্না ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রী দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, প্রায় তিন বছর আগে দুই পরিবারের সম্মতি ছাড়াই কাঠপট্টি সড়কের মিল্টন আকনের ছেলে হিমু আকন ও সুমাইয়া ফরাজী গর্না বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে ছেলের পরিবার এই সম্পর্ক মানছিল না। এ নিয়ে পারিবারিক কলহ লেগেই থাকত। রোববার দুপুরে হিমুর বাবার মুড়ির মিলের উপরের একটি কক্ষে ঝগড়া করে ওই দম্পতি।

এক পর্যায়ে সুমাইয়ার মামা তরিকুল ইসলাম রাজুকে মুঠোফোনে স্ত্রীর মৃত্যুর কথা জানান হিমু আকন। পরে দুই জনকেই মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমাইয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শিউলি পারভীন জানান, শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন নাই। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

০৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১০:৫৭ এ.ম