nagorikkanthanagorikkantha

সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি। সবশেষ ব্রাজিল বিশ্বকাপে তার অসাধারণ নেতৃত্বে বিশ্বকাপ না জিতলেও রানার্সআপ হয়ে শেষ করে আর্জেন্টিনা।

এবারও রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় থাকা আর্জেন্টিনাকেও একক নৈপুণ্যে বিশ্বকাপের মূলপর্বের টিকিট এনে দিয়েছেন মেসি। অথচ দলীয় এই অধিনায়কের মূর্তিই নিজ দেশ আর্জেন্টনায় হামলার শিকার হয়েছে।

আর্জেন্টিনার বুয়েন্স অ্যাইরেসের পাসেও ডি লাস গ্লোরিয়াসে মেসির একটি ভাস্কর্য ছিল। কিন্তু গত রোববার রাতে মেসির ওই ভাস্কর্য হামলার শিকার হয়েছে। ভাস্কর্যের দুই পা কেটে সেটিকে নিচে ফেলে রাখা হয়েছে। ২০১৬ সালের ২৮জুন মেসির এই ভাস্কর্যটি উদ্বোধন করা হয়েছিল ।

এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো আর্জেন্টিনায় লিওনেল মেসির ভাস্কর্য হামলার শিকার হয়েছে। এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে মেসির ভাস্কর্যে হামলা করেছিল দুর্বৃত্তরা।

বুয়েন্স অ্যাইরেসে মেসির ভাস্কর্যটি তৈরি করেছিলেন কার্লোস বেনাভিডেস। বর্তমানে এই ভাস্কর্য আর্জেন্টিনার রাজধানীতে মনুমেন্টস ও আটর্স বিভাগে স্থানান্তর করা হবে।

পাসেও ডি লাস গ্লোরিয়াসে আর্জেন্টিনার বিখ্যাত সব খেলোয়াড়দের ভাস্কর্য তৈরি করে রাখা হয়েছি। দেশটির বাস্কেটবল তারকা ম্যানু জিনোবিলি, প্রাক্তন রাগবি তারকা হুগো পোর্তা, লুসিয়ান আয়মার এবং হুয়ান ম্যানুয়েল ফাঙ্গিদের মতো তারকা খেলোয়াড়দের ভাস্কর্য রয়েছে সেখানে। ২০১৮ সালের ইয়ুথ অলিম্পিক গেমসের আসর উপলক্ষ্যে এই এলাকাটিতে উন্নয়ন কাজ চলছে।

০৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১০:৫৫ এ.ম