nagorikkantha

মৃত শহরে জীবন্ত, নাকি জীবন্ত শহরে মৃত !
ভারসাম্যহীন, ভারাক্রান্ত চিত্তের
অনল জ্বালা বয়ে বেড়ায় মানুষ নামের দেহ।

প্রাণ পাখি, আত্মা, রুহ, মুহুর্ত, ফুরুত, লাশ!
মনুষ্য সৃষ্ট কষ্ট, নির্দোষ সৃষ্টি কর্তা।
কস্তূরী অন্বেষনে দেহযন্ত্র,
অগ্ন্যুৎসবে নোনা জলের বাস্প!
কর্ণ লতিকায় নি:স্বাসের কম্পন।
ত্রিবেনীর ঘাটে পর্যদুস্ত মাঝি!
উত্তাল সমুদ্রে নেশার্ত উত্তপ্ত ঢেউ
ভাঙ্গা তরী, মোহমায়ার অধৈর্য্যের বারিপাত!
বাসনায় রক্ত চোখ, লজ্জিত মরচে ধরা তরবারী।

স্বপ্নে হুংকার, ইথারে ভৎসনা, রোমকুপে ক্লান্তির রস!
ভ্রমাত্মক ভূলে ভূলুন্ঠিত শানে রুহ, পদ্মফুলের শিয়রে শর্পের বাস
ভ্রমরের গুঞ্জনে নৃত্যকলায় মশগুল প্রাণকান্ত,
সহিসের ক্ষিপ্রতায় অধৈয্যের সর্বনাশ!

শহরের সোডিয়াম আলোয় ঝলমল আলোকিত শহর
উৎকট গন্ধ, ধুলোবালি, বাতাসে কার্বণ, খাদ্যে ফরমালিন
লোডশেডিং, শহরে, লোড শেডিং বিছানায়,
ফুলের নির্যাস উঁকি দেয় জোছনার প্রশ্রবণে।

স্বপনে জাগরণে অন্ত নেই তালাশের, ভাগ্যের তালাশ!
ত্রিবেনীর ঘাটে চলে কস্তুরীর তালাশ।
মৃত শহরে জীবন্ত তালাশ
নাকি জীবন্ত শহরে মৃত তালাশ!

১১-১২-২০১৭ ইং
সিঙ্গাপুর

১১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৫:০৬ পি.এম