nagorikkantha

নতুন স্বাদের মাস্টারড গ্রিলড চিকেন পোলাও

ভোজনে নতুন স্বাদের মাস্টারড গ্রিলড চিকেন পোলাও এর রেসিপি

মুরগি মেরিনেইশনের জন্য

উপকরণ : মুরগির রান ৯ টুকরা (যেকোনো টুকরা নিতে পারেন কিংবা আস্ত মুরগি), দুধ ১ কাপ, লেবুর রস ৩ টেবিল-চামচ, পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল-চামচ, আদাবাটা ১ টেবিল-চামচ, রসুনবাটা ১ টেবিল-চামচ, গরম মসলা-গুঁড়া দেড় টেবিল-চামচ, মরিচগুঁড়া ১ টেবিল-চামচ, ভাজা জিরাগুঁড়া আধা টেবিল-চামচ, ধনেগুঁড়া আধা টেবিল-চামচ, টমেটো সস ২ টেবিল-চামচ, লবণ স্বাদ মতো, লাল খাবার রং একফোঁটা(ইচ্ছা), তেল ৬ টেবিল-চামচ।

পদ্ধতি : মুরগির মাংসের রানগুলোর উপর হালকা ভাবে চাকু দিয়ে আড়াআড়ি করে গভীরভাবে দাগ কেটে নিন এবং মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন।

দুধের সঙ্গে প্রথমে লেবুর রস দিয়ে মিশিয়ে বাকিসব মসলাগুলো দিন। কাঁটাচামচ দিয়ে নেড়ে দুধের সঙ্গে ভালো করে মেশান।

এবার পানি ঝরানো মুরগির রানে মসলা ভালো করে মাখান। মেরিনেইশনের জন্য রেখে দিন এক ঘণ্টা।

যদি সময় কম থাকে তাহলে সঙ্গে সঙ্গেই চুলায় কড়াইতে রান্না করতে পারেন অথবা ওভেনে গ্রিল করতে পারেন।

ওভেনে ২২০ডিগ্রি সেলসিয়াস বা ৪০০ ডিগ্রি ফারেনহাইটে, মেরিনেইট করা মুরগির রানগুলো বেকিং ট্রেতে দিয়ে ৪৫ থেকে ৫০ মিনিট গ্রিল করুন।

মুরগি হতে হতে পোলাও রান্না করে ফেলুন।

পোলাওয়ের জন্য-

উপকরণ : পৌনে এক কেজি বাসমতি চাল (পরিমাপ কাপের ৬ কাপ), সরিষার তেল ১/৩কাপ, আদাবাটা ১ টেবিল-চামচ, পেঁয়াজকুচি ১টি বড়, গরম মসলা (এলাচ ৪টি, তেজপাতা ২টি), গুঁড়াদুধ ৪ টেবিল-চামচ, লবণ স্বাদ মতো, কাঁচামরিচ ৮,৯টি, পানি সাড়ে ১১ কাপ।

রান্না শুরু করার আগে চাল ধুয়ে ভিজিয়ে রাখুন ২৫ মিনিট। তারপর ভেজানো চাল থেকে পানি ঝরিয়ে রাখুন৷ পানির সঙ্গে গুঁড়াদুধ মিশিয়ে পানি গরম করে রাখুন।

পদ্ধতি : হাঁড়িতে সরিষার তেল গরম করে গরম মসলা ও পেঁয়াজ ভেজে সঙ্গে আদাবাটা দিয়ে কষিয়ে নিন এবং পানি ঝরানো চালগুলো ঢেলে দিয়ে, চুলার মাঝারি আঁচ রেখে চালগুলো ভাজতে থাকুন। সাত থেকে আট মিনিট ভাজার পর চালের রং পরির্বতন হয়ে হলুদ হয়ে আসবে। বুঝতে পারবেন চালগুলো ভাজা ভাজা হয়ে গেছে।

তখন গুঁড়াদুধ মেশানো গরম পানি, কাঁচামরিচ ও লবণ দিয়ে ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে দিন আর চাল সিদ্ধ হতে দিন। তিন থেকে চারবার বলক আসলে ঢেকে ২৫ মিনিট রান্না করুন।

চুলার আঁচ কমিয়ে দিন। রান্নার মাঝখানে ঢাকনা খুলবেন না। পোলাও সুন্দর মতো হয়ে যাবে।

এখন দেখুন মুরগির কি অবস্থা।

মুরগির মাংসগুলো মাঝখানে একবার ওভেন থেকে বের করে উল্টে দেবেন। মাংসগুলো সিদ্ধ হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। খেয়াল রাখুন যাতে করার সময় নরমাল তান্দুরি মুরগির মতো মাংসের উপরে পোড়া পোড়া না হয়।

মাংসগুলো জুসি বা রসালো থাকবে। মসলাগুলো কিন্তু শুকাবে না আর মাখা মাখা ঝোল থাকবে।

মুরগি হলে নামিয়ে নিন এবং দেখুন ২৫ মিনিট পর পোলাওয়ের কি অবস্থা।

পোলাওয়ের ঢাকনা খুলে আলতোভাবে চারপাশ নেড়েচেড়ে দিন। এবার গ্রিল করা মুরগি এবং ঝোলসহ পোলাওয়ের উপর ঢেলে দিয়ে, ঢেকে আরও পাঁচ মিনিট দমে রাখুন। তারপর নামিয়ে পরিবেশন করুন।

০৪ জানুয়ারী, ২০১৮ ০৯:৫৪ এ.ম