nagorikkantha

ছোটবেলা থেকে সিনেমার নায়ক হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন শায়ের খান। সে জন্য তিনি প্রচুর পরিমাণ বাংলা সিনেমা দেখতেন। ভাবতেন, যেভাবেই হোক নায়ক তাকে হতেই হবে! বিশেষ করে সালমান-শাবনূর জুটির সিনেমাগুলো বেশি ভালো লাগতো শায়ের খানের। আর সেই শাবনূরের নায়ক হয়েই শায়ের খান পর্দায় আসতে চলেছেন। স্বপ্ন পূরণ আর কাকে বলে!

আগামী ১২ জানুয়ারি মুক্তি পেতে যাচ্ছে শাবনূর-শায়ের খান জুটির সিনেমা ‘পাগল মানুষ’। ছবিটির প্রযোজনা সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৭০টির মতো হলে সিনেমাটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

‘পাগল মানুষ’ সিনেমার মুক্তি উপলক্ষে গতকাল সোমবার, ৮ জানুয়ারি সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে শায়ের খান বলেন, ‘শাবনূর আমার স্বপ্নের নায়িকা। সিনেমায় আমি একেবারেই নতুন। প্রথম সিনেমায় তাকে নায়িকা হিসেবে পেয়েছি এ আমার পরম পাওয়া।’

তিনি এও বলেন, ‘প্রথমবার সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে অনেক অসুবিধায় পড়েছিলাম। কিন্তু শাবনূর আপা আমাকে সহশিল্পী হিসেবে অনেক সাহায্য করেছেন। হাতে ধরে শিখিয়েছেন কিভাবে অভিনয় করতে হয়। তার শেখানো পথ ধরেই আমি সিনেমায় নিয়মিত হতে চাই। শিগগিরই যৌথ প্রযোজনায় নাম চূড়ান্ত না হওয়া একটি ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছি। মাস দুয়েকের মধ্যেই ছবিটির শুটিং শুরু হবে। আমার জন্য শুভকামনা রাখবেন।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মিশা সওদাগর, ডন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শেষদিকে অসুস্থ শরীর নিয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন শাবনূর নিজেও। তারা প্রত্যেকেই ছবিটির সাফল্য কামনা করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে শুরু হয়েছিলো ‘পাগল মানুষ’ সিনেমার কাজ। ছবিটির পরিচালক এম এম সরকারের মৃত্যুর কারণে পাগল নির্মাণকাজ অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। এরপর বদিউল আলম খোকনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছবিটি নির্মাণ শেষ হয়।

অবশেষে আগামী শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) পাগল মানুষ মুক্তি পেতে যাচ্ছে। শাবনূর-শায়ের খান ছাড়াও অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, রেহানা জলি, কাবিলা, সাদিয়া আফরিন, বিপাশা কবির, ইলিয়াস কোবরা, শিবা শানু প্রমুখ।