nagorikkantha

খুলনায় স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানি এবং এর প্রতিবাদ করায় তার ভাইকে পুলিশ ক্যাম্পে আটকে রেখে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় খুলনার নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে সোনাডাঙ্গাস্থ ক্যাম্পাসের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

এ সময় নির্যাতনের শিকার নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির আইনের ছাত্র মো. তরিকুল ইসলামের সহপাঠীরা বলেন, ‘১৫ জানুয়ারির মধ্যে ঘটনার সুষ্ঠু বিচার করতে হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত পুলিশ সদস্যদের কঠোর শাস্তি দিতে হবে। অন্যথায় কঠোর আন্দোলন-কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।’

মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন আলামিন শেখ, শিথি রিতা, ফারজাহান ইসলাম রিতা, ফাহমিদ ইসলাম, হামিম হাসান, লিজা, বিল্পব মজুমদার প্রমুখ।

গত ৯ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৯টার দিকে খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার বাইনতলা খারাবাদ কলেজিয়েট স্কুলে যাওয়ার পথে স্থানীয় বাইনতলা পুলিশ ক্যাম্পের কনস্টেবল নাঈম দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করে। ওই ছাত্রীর ভাই তরিকুল ইসলাম এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালে কনস্টেবল নাঈম তাকে ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে শারীরিক নির্যাতন করে আটকে রাখে। খবর পেয়ে স্থানীয় গ্রামবাসী ফাঁড়িতে গেলে পুলিশের সঙ্গে তাদের ধস্তাধস্তি হয়। এ সময় উত্তেজিত জনতা ফাঁড়ি ঘেরাও করে রাখে। এ ঘটনায় কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্ত কনস্টেবল নাঈম, মামুন, রিয়াজ, আবির ও নায়েব জাহিদকে এবং রাতে ক্যাম্পের সকল সদস্যকে প্রত্যাহার করে।

এ ছাড়া ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সজীব খানকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি ইতোমধ্যেই তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে।

১৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৫:১৮ পি.এম