nagorikkantha

পুলিশের প্রিজন ভ্যান ভেঙে দুই কর্মীকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ সাত শ থেকে আটশো জনকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে শাহবাগ থানায় দুটি ও রমনা থানায় একটি মামলা করা হয়।

সরকারি কাজে বাধা দান, পুলিশের ওপর হামলা, রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিনষ্ট, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিঘ্নসহ বেশ কয়েকটি ধারায় মামলা দুটি করা হয়েছে। মামলা নম্বর ৫৭ ও ৫৮। শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রহিদুল ইসলাম ও এসআই চম্পক বাদী হয়ে পৃথক এই মামলা দুটি করেন। শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে বিশেষ ক্ষমতা আইনে রমনা থানায় মামলাটি করা হয়েছে। রমনা থানার ওসি মাইনুল ইসলাম এ তথ্যের সততা নিশ্চিত করেছেন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গতকাল বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে হাজিরা দিয়ে ফিরছিলেন। দলের চেয়ারপারসনের আদালতে হাজিরার দিন প্রতিবারের মতো কালও নেতা-কর্মীরা হাইকোর্ট মাজার গেটে জড়ো হন। পরে বকশীবাজার থেকে বিএনপির আরেকটি মিছিল এসে এতে যোগ দেয়।

পুলিশের দাবি, খালেদা জিয়া ফেরার সময় মিছিল থেকে পুলিশের দিকে ইটপাটকেল ছোড়া হয়। হাইকোর্ট এলাকায় পুলিশের প্রিজন ভ্যান ভেঙে দুই কর্মীকে ছিনিয়ে নিয়ে যান বিএনপির নেতা-কর্মীরা। এ সময় তাঁদের সঙ্গে সংঘর্ষে পুলিশের একজন অতিরিক্ত উপকমিশনারসহ (এডিসি) অন্তত চার পুলিশ সদস্য আহত হন। পুলিশের দুটি রাইফেলও এ সময় ভাঙচুর করা হয়।

গতকাল রাত সোয়া ১০টায় গুলশান থেকে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) আটক করেছে বলে দলীয় সূত্র জানায়। এর আগে সন্ধ্যায় রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার প্রথম আলোকে বলেন, দুই কর্মীকে ছিনিয়ে নেওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থল ও আশপাশের এলাকা থেকে ৬৯ জনকে আটক করেছে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।