nagorikkantha

মিয়ানমারে পাশবিকতার শিকার হয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এসেছেন বাংলাদেশ সফররত সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেন বেরসে। মঙ্গলবার বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটের দিকে তিনি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পৌঁছান। এর আগে বেলা ১১টার দিকে সুইস এয়ারফোর্সের বিশেষ বিমানে কক্সবাজার বিমান বন্দরে অবতরণ করেন তিনি।

গত বছরের সেপ্টেম্বর নতুন সংকটের কারণে বাংলাদেশে পালিয়ে প্রায় আট লাখ রোহিঙ্গা কক্সবাজারের কুতপালংসহ বিভিন্ন ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়েছেন। এ সংকট শুরুর পর থেকে রোহিঙ্গাদের সহায়তায় বাংলাদেশ সরকারের পাশে দাঁড়ায় সুইজারল্যান্ড সরকার। তাদের বর্তমান অবস্থা দেখতে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এলেন বাংলাদেশে সফররত সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন জানান, অ্যালেন বেরসে কুতপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বিভিন্ন ব্লক ঘুরে দেখছেন। এখানে তিনি দুপুর ২টা পর্যন্ত থাকার কথা রয়েছে। ক্যাম্পে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলে তাদের ওপর ঘটে যাওয়া মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বর্বর নির্যাতনের কাহিনী শুনছেন। পরিদর্শন শেষে রোহিঙ্গাদের হাতে ত্রাণও তুলে দেয়ার কথা রয়েছে। এরপর স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলবেন সফররত সুইচ প্রেসিডেন্ট।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ফিরে তিনি কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল পরিদর্শন করবেন। এরপর বিকেল সোয়া ৩টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে কক্সবাজার ত্যাগ করার কথা রয়েছে প্রেসিডেন্ট অ্যালেন বেরসের।

এদিকে সুইস প্রেসিডেন্টের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনকে ফিরে মেরিন ড্র্রাইভ কোটবাজার মরিচ্যাসহ পুরো উখিয়া জুড়ে অঘোষিত হরতাল চলছে। নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার কারণে কোনো প্রকার যানবাহন এসব এলাকায় চলাচল করতে পারছে না। বন্ধ রয়েছে দোকানপাটও।

উল্লেখ্য, কয়েকদিনের সফরে সোমবার বাংলাদেশ এসেছেন সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেন। সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে তার কার্যালয়ে এক বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের মানবিক আচরণের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সফররত সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট। তিনি জানিয়েছেন, এই সংকটের সঙ্গে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের প্রশ্ন জড়িত। মানবতা, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের স্বার্থে এই সংকট সমাধানে বাংলাদেশের পাশে থাকবে সুইজারল্যান্ড। এ সময় রোহিঙ্গাদের সহায়তায় আরও ১২ মিলিয়ন সুইস ফ্রাংক (১০৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা) অনুদানের ঘোষণা দেন তিনি। রোহিঙ্গাদের সহায়তায় সুইজারল্যান্ড এর আগে ৮০ লাখ সুইস ফ্রাংক দিয়েছে জানিয়ে দেশটির রাষ্ট্রপতি বলেন, এ দফায় আমরা আরও ১২ মিলিয়ন ফ্রাংক দেব বিপদগ্রস্ত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সহায়তায়। এরপরই তিনি রোহিঙ্গাদের দেখার জন্য কক্সবাজার আসেন।