nagorikkantha

আবদুর রাজ্জাকের সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন ছিল অনেকের। সেই ‘অনেকের’ মধ্যে নিশ্চিতভাবেই প্রথম সারিতে ছিলেন সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। শ্রীলঙ্কার বর্তমান এই কোচ বাংলাদেশের দায়িত্ব নেয়ার পরই ফর্মের চূড়ায় থাকা রাজ্জাকের ক্যারিয়ার একেবারেই শেষ করে দিয়েছিলেন। বাংলাদেশের অন্যতম সেরা পারফরমারকে এতটাই বিস্মৃতির অতল গহ্বরে তলিয়ে ফেলেছিলেন যে, তিনি কখনও জাতীয় দলে ফিরতে পারেন এই বিশ্বাসটাই ছিল না কারো।

অবশেষে নিয়তির ফেরে আবারও জাতীয় দলে ডাক পেলেন আবদুর রাজ্জাক রাজ। চট্টগ্রাম টেস্টে তিনি একাদশে সুযোগ না পেলেও চার বছর পর ঠাঁই পেলেন ঢাকা টেস্টের একাদশে। সুযোগ পেয়েই সেটাকে কাজে লাগিয়ে বসলেন তিনি। শুরুতেই ফিরিয়ে দিলেন লঙ্কান ওপেনার দিমুথ করুনারত্নেকে।

চার বছর পর রাজ্জাক একাদশে ফিরলেও প্রায় সাড়ে চার বছর পর আবারও টেস্ট উইকেট পেলেন তিনি। সর্বশেষ তিনি টেস্ট উইকেট পেয়েছিলেন ২০১৩ সালের ২৩ অক্টোবর, ঢাকার এই মাঠেই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। কিউই ব্যাটসম্যান টেন্ট বোল্টকে এলবিডব্লিউ করেছিলেন সেদিন তিনি।

এরপর যদিও আর একটি মাত্র টেস্ট খেলতে পেরেছিলেন রাজ্জাক। সেটা ২০১৪ সালের ৪ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ওই টেস্টে মাত্র ৪ ওভার বোলিং করার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। উইকেট পাননি। রান দিয়েছিলেন ৬টি। ফিগারটা দাঁড়াচ্ছে ৪-১-৬-০। এরপর থেকেই সাদা পোশাকে আর দেখা যায়নি বাংলাদেশের অন্যতম সেরা স্পিনারকে।