nagorikkantha

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ক্ষমতাশীন দলের মহড়াকে কেন্দ্র করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ হলে পুলিশের মাঝখানে হুন্ডা মহড়া হয় কীভাবে? তারা কি আওয়ামী লীগের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী? নাকি সন্ত্রাসী? সরকার দলীয়রা বুক চিতিয়ে মোটরসাইকেল বহর নিয়ে যাচ্ছে। তারা সন্ত্রাসী রাজত্ব কায়েম করেছে। এটা কি উসকানি নয়?

বৃহস্পতিবার সকালে সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিযায় তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, সরকারের দুঃশাসনের দৌরাত্ম্য ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে। তারা জনতার আওয়াজ শুনলেই আঁতকে উঠেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জনতাকে ভয় পায়। এজন্য অমানিশার কাল তৈরি করেছেন। তারা জনতার উত্তাল ঢেউ প্রতিহত করার চেষ্টা করছে। সরকারি বাহিনীর উন্মত্ত আচরণে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

এ সময় বিএনপি নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নেতাকর্মীর কোলাহলপূর্ণ চিরচেনা পল্টন কার্যালয় সকাল থেকে পুরোটাই শুনশান করছে। হাতে গোনা দুই-চারজন নেতাকর্মী ও সংবাদকর্মীদের উপস্থিতি দেখা গেছে।

তবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সুষ্ঠু বলে দাবি করেছেন ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের এডিসি মাহাবুবুর রহমান।