nagorikkantha

দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জন্য কারাগারে ডিভিশন চেয়ে আদালতে আবেদন করা হয়েছে।

রোববার সকালে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান জিয়ার আদালতে এ আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। বেলা ১১টায় এ বিষয়ে শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

দুর্নীতি দমনি কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই মামলায় অন্য আসামি খালেদার ছেলে তারেককে দেয়া হয়েছে ১০ বছরের কারাদণ্ড। আদালত বলেছেন, বয়স বিবেচনায় কম সাজা দেয়া হয়েছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম জিয়াকে।

রায়ের পরই নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে নেয়া হয় বেগম জিয়াকে। সেখানে বেগম জিয়া সবরকম সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন- সরকারের তরফ থেকে এমন দাবি করা হলেও বিএনপি নেতাদের অভিযোগ খালেদা জিয়াকে কারাগারে কোনো ডিভিশন দেয়া হয়নি। তাকে সাধারণ কয়েদি হিসেবে রাখা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে বেরিয়ে এসে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, খালেদা জিয়া সাবেক সংসদ সদস্য, সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং একটি দলের প্রধান। কিন্তু কোনো ডিভিশন দেয়া হয়নি। পরিচারিকা ফাতেমাকেও খালেদা জিয়ার সঙ্গে থাকার অনুমতি দেয়া হয়নি। এ ছাড়া সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে অখাদ্য খেতে দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।