nagorikkanthanagorikkantha

ডিম প্রোটিনের একটি অত্যন্ত চমৎকার উৎস, আর ক্ষেতে দারুণ সুস্বাদু তো বটেই। যদিও অনেকে মনে করেন ওজনবৃদ্ধি, রক্তে চর্বির আধিক্য বা হৃদরোগে আক্রান্ত মানুষদের ডিম না খাওয়াই উচিত৷

তবে সুখবর হলো, এই কথায় খুব একটা পাত্তা দেওয়ার আর দরকার নেই৷ কারণ চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, ডিম অবশ্যই একটি সুষম খাবার৷ এতে ভিটামিন-ডি সহ প্রায় ১১ ধরণের ভিটামিন এবং মিনারেল জাতীয় পদার্থ রয়েছে৷

একটি ডিমে রয়েছে ৫ গ্রাম ফ্যাট, এবং এর পুরোটাই রয়েছে ডিমের কুসুমে৷ এরমধ্যে সম্পৃক্ত বা ক্ষতিকারক চর্বির পরিমাণ দেড় গ্রাম৷ অন্যদিকে ডিম পুষ্টির উৎস, সহপাচ্য ও উপকারী৷

বিজ্ঞানীরা বলেছেন, ডিম খাওয়া বাদ না দিয়ে হাই ক্যালোরিযুক্ত খাবার যেমন কেক, পেস্ট্রি, চকোলেট, জাঙ্কফুড ও কোমল পানীয়জাতীয় খাবারে তালিকা থেকে বাদ দিন৷

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অফ অস্ট্রেলিয়ার সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা সুষম খাদ্যাভ্যাসে অভ্যস্ত, তারা সপ্তাহে ছটি ডিম খেলে ক্ষতির মুখে পড়বেন না৷ যদি ফ্যাটের ভয় থাকে না হয় সপ্তাহে ৩ দিন কুসুমটা বাদ দেবেন কিংবা অর্ধেকটা ডিম খাবেন সাতদিন।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর/এইচ কে

১৪ আগষ্ট, ২০১৭ ১৬:৩৮ পি.এম