nagorikkanthanagorikkantha

গত বারের ন্যায় এবারো নোয়াখালীর মাইজদি, চৌমুহনিতে ও কোম্পানীগঞ্জে দেশ সেরা -ব্যয়বহুল পুজার আয়োজন করা হয়েছে। শেষ মুর্হুতে ব্যাস্ত সময় পার করছে কারিগররা। খড়, বাশ ও কাঠ দিয়ে তৈরি হয়েছে প্রতিমা। প্রতিমা তৈরি শেষ হয়ে চলছে রংয়ের কাজ। তবে আয়োজকরা বলছে বৃষ্টি ও বন্যার কারনে এবার মানুষের হাতে টাকা নেই তাই এবার কম খরছে প্রতিমা তৈরির কাজ চলছে। তারপরও প্রতিবারের মত এবারও লাখ লাখ দর্শনার্থীর সমাগম হবে নোয়াখালীতে।

অপরদিকে মাইজদিতে এক হাজার ২ টি হাত দিয়ে তৈরি হচ্ছে দেশের বৃহৎ দেবী দূর্গার প্রতিমা।

নোয়াখালীতে মোট ১৬০ টি পুজা মন্ডপে দূর্ঘাপুজা অনুষ্ঠিত হবে।

কোম্পানীগঞ্জ জগন্নাথ মন্দীর পুজাউদযাপন কমিটির সেক্রেটারী রতন ভৌমিক জানান,আমাদের পুজা মন্ডোপ উপজেলার শ্রেষ্ঠ মন্ডপ হবে, আশারাখি সার্বজনিন এই উৎসবে সকলের উপস্থিতি থাকবে।

দূর্ঘাপূজোয় আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে কঠোর থাকবে প্রশাসন এছাড়া থাকবে আনসার ও স্বেচ্ছাসেবক জানিয়েছের নোয়াখালী পুলিশ সুপার ইলিয়াস শরিফ।

 

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৪:৪১ পি.এম