nagorikkanthanagorikkantha

মস্তিষ্ক বিষয়টা এমনিতেই বেশ জটিল। আর সে কারণে এই নিয়ে আনেক আলোচনা রয়েছে। তবে তা যদি কোনো মহিলাদের ক্ষেত্রে হয়, তা হলে কোনো কথাই নেই। মেয়েদের মনের মতো মস্তিষ্কের হদিশ পাওয়াও বেশ কষ্টকর। আর মেয়েদের কার্যকলাপের প্রভাব যখন এসে পরে পুরুষদের ওপর, তখন সেই মস্তিষ্কের খবর একটু জেনে রাখতেই হয়। তাই আগেভাগেই জেনে নিতে পারলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হয়। মেয়েদর মস্তিষ্ক নিয়ে এমনই সাতটি তথ্য দেয়া হলো:

১. এমনিতেই মেয়েদের গায়ে ঝগড়াটের খ্যাতাব লেগে থাকলেও বিশেষজ্ঞদের দাবি, মেয়েরা কোনো ভাবেই ঝগড়া পছন্দ করে না।

২. মস্তিষ্কের গঠন অনুযায়ী মেয়েদের বোধশক্তি ছেলেদের থেকে বেশি। তবে মস্তিষ্কের গঠন অনুয়ায়ী মেয়েরা ছেলেদের চেয়ে কম আগ্রাহী হয়।

৩. বয়ঃসন্ধি ও অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় নারীদের মস্তিষ্কে বড় পরিবর্তন আসে। এ সময়ে কোনো মানসিক চাপ স্থায়ী ক্ষতি করতে পারে।

৪. যন্ত্রণা ও চাপ মেয়েদের মস্তিষ্কে গভীর সমস্যার সৃষ্টি করে। তাই এই দু’টি থেকে তাদের যত দূরে রাখা যায়, ততই ভাল।

৫. সন্তান জন্মের পর সদ্য মায়ের মস্তিষ্কে প্রচুর পরিবর্তন আসে। এ সময়ে তাদের বিশেষ খেয়াল রাখা জরুরি।

৬. সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, মহিলারা ঝুঁকি নিতে ভালবাসেন। তাদের মস্তিষ্ক সে ভাবেই তৈরি।

৭. স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের সময়ে মেয়েদের মস্তিষ্কের বেশির ভাগ অংশ কাজ করে না। তখন তাদের চিন্তা-ভাবনার ক্ষমতা একেবারে কমে যায়।

০২ অক্টোবর, ২০১৭ ১৬:২৪ পি.এম