nagorikkanthanagorikkantha

পদ্মা সেতু যেভাবে সকলের কাছে দৃশ্যমান হয়েছে, ঠিক একইভাবে আগামী ৬ মাসের মধ্যে মেট্রোরেলও সকলের কাছে দৃশ্যমান হবে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়ি এলাকায় মেট্রোরেল নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শণ করেন ওবায়দুল কাদের।

এসময় সেতুমন্ত্রী বলেন: হলি আর্টিজানের ঘটনা মেট্রোরেলের জন্য বিশাল ধাক্কা ছিল। জাপানি কয়েকজন কনসাল্টেন্ট ওই নৃশংসতায় নিহত হয়েছেন। আমরা তো ভেবেছিলাম- এই ঘটনার পর তারা ফিরে যায় কি না। কিন্তু ৫-৬ মাসের মধ্যে আবার কাজ শুরু হয়েছে। দ্রুততার সঙ্গে কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি, আগামী ৬ মাসের মধ্যে তরুণ প্রজন্মের স্বপ্নের মেগা প্রজেক্ট মেট্রোরেল দৃশ্যমান হবে।

এখন পর্যন্ত রেলের ১০-১২ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান ওবায়দুল কাদের।

তিনি জানান: প্রথম পর্যায়ে ২০১৯ সালের মধ্যে দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেল চালু করার চিন্তা রয়েছে। কাজ সেভাবেই এগোচ্ছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০২০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক পর্যন্ত মেট্রোরেল হবে।

জামায়াতের আমীরসহ ৯ নেতার গ্রেফতারের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবারের হরতালে জামায়াত-শিবির সহিংসতা করতে পারে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন: সহিংসতার কোন সুযোগ নেই। তারপরও যদি কেউ সহিংসতার দিকে যায় তাহলে উদ্ভুত পরিস্থিতি বিচার করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন: সহিংসতা করে দাবি আদায়ের দিন শেষ। ৫ জানুয়ারি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপি সহিংসতা, অগ্নিসংযোগ, মানুষ হত্যা করেছে। এতে করে তারা আরও বেশি জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

জামায়াতকে রুখতে আওয়ামী লীগ কি মাঠে থাকবে? এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন: আওয়ামী লীগের মাঠে থাকার কোন প্রয়োজন নেই। কেননা আওয়ামী লীগ মনে করে,‘রাজপথ দখল করে কোন কিছু করার মতো সামর্থ্য আওয়ামী লীগ বিরোধী কোন রাজনৈতিক শক্তির নেই।’

১১ অক্টোবর, ২০১৭ ১৭:৪১ পি.এম