nagorikkanthanagorikkantha

 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মিয়ানমার থেকে এখনও স্রোতের মতো রোহিঙ্গারা আসছে। কিন্তু বাংলাদেশের পক্ষে এত বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গার বোঝা বহন করা সম্ভব নয়। কেননা জাতিসংঘ তাদের অঙ্গীকার রক্ষা করেনি। তাই রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে অথবা অন্য কোন দেশে স্থানান্তরিত করার জন্য তিনি জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ করেন ওবায়দুল কাদের।

এসময় তিনি বলেন, রোহিঙ্গা স্রোতের সঙ্গে ইয়াবা আসছে, অস্ত্র আসছে। এজন্য আমাদের সামাজিক বিপর্যয় ঘটবে। রোহিঙ্গাদের জীবনযাপনের প্রভাব অত্যন্ত বিপজ্জনক। কাজেই আমরা জাতিসংঘকে আহ্বান করছি, মিয়ানমারকে চাপ সৃষ্টি করে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার ব্যবস্থা করুন। আমরা এই বোঝা আর সহ্য করতে পারছি না। এটি আমাদের অসহ্য হয়ে গেছে।

এর আগে কক্সবাজারে ৪ কোটি ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য সড়ক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে মন্ত্রী বলেন: খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা দিয়েছেন আদালত। এখানে সরকার বা আওয়ামী লীগের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। কাজেই বিএনপি এবং তার সহযোগীরা আদালেেতর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে।

এসময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামিম, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি, সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন, পুলিশ সুপার ড. একেএম ইকবাল হোসেন, সওজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী রানা প্রিয় বড়ুয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, পৌরসভার মেয়র মাহবুবুর রহমান চৌধুরীসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

১২ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:১৭ পি.এম